সমৃদ্ধির সোনালী দিন
আনতে হলে আয়কর দিন
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
কর অঞ্চল ৪, ঢাকা
কর কমিশনারের কার্যালয়

আয়কর সংক্রান্ত কতিপয় জ্ঞাতব্য বিষয়

১. আয়কর রিটার্ন, সম্পদ ও দায় বিবরণী এবং জীবন যাত্রার মান সম্পর্কিত তথ্য ছকে সঠিক তথ্য প্রদান করে ঘোষিত আয়ের ভিত্তিতে কর পরিশোধ করা প্রত্যেক করদাতার নাগরিক দায়িত্ব।

২. প্রদর্শিত আয়ের স্বপক্ষে হিসাবের খাতাপত্র এবং তথ্য প্রমাণ সংরক্ষণ করা প্রয়োজন।

৩. আয়কর রিটার্ণ প্রস্ত্তুত এবং তা দাখিলে পর্যাপ্ত সাবধানতা অবলম্বন করা আব্যশক।

৪.জরিমানা পরিহারের জন্য বিধিবদ্ধ সময়সীমার মধ্যে তথ্য প্রমানসহ আয়কর রিটার্ন দাখিল করা বাঞ্চনীয়।

৫. সম্ভাব্য সরল সুদ পরিহারকল্পে যথাসময়ে অগ্রিম করের কিস্তি পরিশোধ করা আবশ্যক।

৬. উৎসে কর কর্তনকারী সকল কর্তৃপক্ষের জন্য কর্তনকৃত/সংগৃহিত কর বিধিসম্মত সময়সীমার মধ্যে সরকারী কোষাগারে জমা প্রদান পূর্বক কর বিভাগে তথ্য প্রেরণ করা আবশ্যক।

৭. সম্ভাব্য জটিলতা পরিহারকল্পে আয়ের কোনো উৎস হতে আয়কর কর্তন করা হলে তার তথ্যাবলী সংগ্রহ করে রাখা আবশ্যক।

৮. কর নির্ধারণী আদেশের বিষয়ে কোনো আপত্তি থাকলে আদেশ প্রাপ্তির ৪৫ দিনের মধ্যে আপীল দায়ের এবং আপীল আদেশ প্রাপ্তির ৬০ দিনের মধ্যে ট্রাব্যুনালে আবেদন দাখিল করতে হবে।

৯. কর অফিসের নোটিশ বা পত্র পেলে অবহেলা না করে তার জবাব প্রদান করা বাঞ্চনীয়।

১০.

(ক) টিআইএন সংক্রান্ত:

(i)  নতুন করদাতার টিআইএন রেজিস্ট্রেশন এবং বিদ্যমান করদাতাদের টিআইএন রি-রেজিষ্ট্রেশনের জন্য জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ইলেক্ট্রনিক পদ্ধতিতে আবেদন করতে হবে (ওয়েবসাইটের ঠিকানা www.incometax.gov.bd)

(ii) আবেদনকারীকে ওয়েবসাইটে বর্ণিত পদ্ধতি অনুসরণ করতে হবে।

(iii) নির্ধারিত ফরমে উপ কর কমিশনারের নিকটও আবেদন দাখিল করা যাবে।

(খ) ট্যাক্স ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট:

ট্যাক্স ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট প্রয়োজন হলে কর পরিশোধের প্রমাণসহ সার্কেল অফিসে আবেদন করতে হবে। এ জাতীয় আবেদনের কোন নির্ধারিত ফর্ম নেই।

১১. অধিকতর তথ্যের জন্য ওয়েবসাইট www.nbr-bd.org ব্যবহার করুন।

 

আয়কর প্রদান, রিটার্ণ দাখিল ও আয়কর আইন সংক্রান্ত কোনো জিজ্ঞাসা থাকলে সরাসরি যে কোনো পর্যায়ের কর কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করলে তিনি আপনাকে সহযোগিত করবেন।